প্লাটিহেলমিনথিস

প্লাটিহেলমিনথিস পর্বের বহু প্রজাতি বহিঃপরজীবী বা অন্তঃপরজীবী হিসেবে অন্য জীবদেহের বাইরে বা ভিতরে বসবাস করে।

তবে কিছু প্রজাতি মুক্তজীবী হিসেবে স্বাদু পানিতে আবার কিছু প্রজাতি লবণাক্ত পানিতে বাস করে।

আবার এই পর্বের কোনো কোনো প্রাণী ভেজা ও স্যাঁতসেঁতে মাটিতে ও বাস করে।

প্লাটিহেলমিনথিস কে চ্যাপ্টা কৃমি ও বলা হয় –
চ্যাপ্টা কৃমি ইংরেজি: Flatworm বা পর্ব প্লাটিহেলমিনথেস গ্রিক শব্দ Platys অর্থাৎ Flat তথা চ্যাপ্টা এবং Helminths অর্থাৎ Worm তথা কৃমি বা কীট থেকে এসছে।

প্লাটিহেলমিনথিস এর বৈশিষ্ট গুলো হল-

  • এদের দেহ অখণ্ডিত, দ্বিপার্শ্বীয় প্রতিসম এবং উপর নিচে চাপা।
  • দেহ অনেকটা ফিতার মত।
  • এরা ত্রিস্তর বিশিষ্ট প্রাণী অর্থাৎ এদের ভ্রূণে তিনটি জার্মিনাল স্তর দেখতে পাওয়া যায়।
  • দেহ-গহ্বর তথা সিলোম অনুপস্থিত এবং অভ্যন্তরীণ অঙ্গসমূহের মধ্যবর্তী স্থান মেসেনকাইম নামক কলায় পূর্ণ।
  • দেহ কিউটিকেল দ্বারা আবৃত। কিউটিকেল অর্থ হচ্ছে চর্ম, বহিঃত্বক,  ত্বকের বাইরের স্তর ইত্যাদি। প্লাটিহেলমিনথেস পর্বের প্রাণী যকৃত কৃমি ও ফিতা কৃমির দেহ পুরু কিউটিকল দ্বারা আবৃত।অর্থাৎ তাদের দেহ মোটা ও ঘন চর্ম দ্বারা আবৃত।
  • দেহে চোষক ও আংটা থাক
  • দেহে শিখা কোষ নামে বিশেষ কোষ থাকে, এগুলো রেচন অঙ্গ হিসেবে কাজ করে।
  • পৌষ্টিকতন্ত্র অসম্পূর্ণ। পৌষ্টিকতন্ত্র হচ্ছে খাদ্যনালী এবং সংশ্লিষ্ট অঙ্গ যাকে পরিপাকতন্ত্র ও বলা হয়। অর্থাৎ প্লাটিহেলমিনথিস পর্বের প্রাণীদের পরিপাকতন্ত্র সুগঠিত ও সম্পূর্ণ নয়।